ইউএনওর ওপর হামলা : প্রধান আসামি ৭ দিনের রিমান্ডে

অথর
জে.এন.এস নিউজ ডেক্স :   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৪:৩৯ অপরাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 33 বার
ইউএনওর ওপর হামলা : প্রধান আসামি ৭ দিনের রিমান্ডে

জে.এন.এস নিউজ ডেক্স : দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার মামলায় প্রধান আসামি আসাদুল ইসলামের (৩৫) সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ রোববার বিকেলে মামলার তদন্তকারী সংস্থা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) আসামির ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে বিচারক সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
দিনাজপুর কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক মো. ইসরাইল হোসেন জানান, রোববার বিকেল ৫টায় দিনাজপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এবিএম মনিরুজ্জামানের আদালতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশ পরিদর্শক আবু ইমাম জাফর আসামি আসাদুল হককে সোপর্দ করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। বিচারক রিমান্ড আবেদন শুনানি শেষে সাত দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ডিবি পুলিশ আসামি আসাদুলকে আদালত থেকে তাদের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে। এদিকে গতকাল শনিবার বিকেলে দিনাজপর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিশির কুমার বসুর আদালতে সোপর্দ করা এ মামলার অপর দুজন আসামি ঘোড়াঘাট উপজেলার সাগরপর গ্রামের নবিরুল ইসলাম (৪০) ও একই উপজেলার চক বামুনিয়া বিশ্বনাথপুর গ্রামের সান্টু কুমার দাসকে (৩৫) আদালতের অনুমতিক্রমে শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় আদালত থেকে রিমান্ডে নিয়ে ডিবি কার্যালয়ে রাখা হয়েছে। ডিবি পুলিশ আদালতের অনুমতি অনুযায়ী ওই দুইজনকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে।
প্রসঙ্গত, গত বুধবার মধ্যরাতে ঘোড়াঘাট উপজেলা উপজেলা পরিষদের নৈশ্য প্রহরীকে বেঁধে রেখে দুর্বৃত্তরা পিপিই ও মাস্ক পরে বাসায় প্রবেশ করে ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে হাতুড়ি দিয়ে মাথায় ও শরীরে বেদম আঘাত করে। এ সময় বাসায় থাকা তার বাবা শেখ ওমর আলী মেয়েকে বাঁচাতে এলে তাকেও সন্ত্রাসীরা গুরুতর আঘাত করে। হামলার পর দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুরুতর অবস্থায় ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা শেখ ওমর আলীকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ওই দিনই ওয়াহিদা খানমকে এয়ার এ্যাম্বুলেন্স যোগে ঢাকা নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে  সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − nine =


আরও পড়ুন