দুই ব্রাভোর কল্যাণে অপরাজিত রইল নাইট রাইডার্স

অথর
জে.এন.এস নিউজ ডেক্স :   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :২৭ আগস্ট ২০২০, ৪:০৫ পূর্বাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 16 বার
দুই ব্রাভোর কল্যাণে অপরাজিত রইল নাইট রাইডার্স

জে.এন.এস. ডেক্স: প্রথম দুই ম্যাচ জিতিয়েছিলেন সুনিল নারিন। পরেরটায় কলিন মুনরো, কাইরন পোলার্ডরা তুললেন ঝড়। আর সবশেষ নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সকে জেতালেন দুই ভাই ডোয়াইন ব্রাভো ও ড্যারেন ব্রাভো। দুই ভাইয়ের কল্যাণে টানা চতুর্থ ম্যাচ জিতে নিয়েছে নাইট রাইডার্স। বুধবার রাতে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ডি/এল মেথডে সেইন্ট লুসিয়া জুকসকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে নাইট রাইডার্স। আগে ব্যাট করে ১৭.১ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১১১ রান করেছিল সেইন্ট লুসিয়া। তারপর নামে বৃষ্টি। নাইট রাইডার্সের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৯ ওভারে ৭২ রান, এক ওভার হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় নাইট রাইডার্স।
ম্যাচের প্রথম ইনিংসের চতুর্থ দারুণ এক কীর্তি গড়েন ডোয়াইন ব্রাভো। সেইন্ট লুসিয়ার ওপেনার রাহকিম কর্নওয়ালকে কলিন মুনরোর ক্যাচে পরিণত করে ইতিহাসের প্রথম বোলার হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে ৫০০ উইকেটের ক্লাবে নাম লেখান ব্রাভো। পরে সাজঘরে পাঠান ইনফর্ম রস্টোন চেজকেও।
বৃষ্টিতে পুরো ইনিংস খেলা হয়নি বিধায় ৩ ওভারের বেশি বোলিং করতে পারেননি ব্রাভো। তাতেই মাত্র ৭ রান খরচার ২ উইকেট শিকার করেছেন এ ডানহাতি মিডিয়াম পেসার। সেইন্ট লুসিয়ার পক্ষে ২২ বলে ৩০ রান করেন মোহাম্মদ নাবী। তার ব্যাটে চড়েই ১৭ ওভারে শতরান পার করতে পেরেছে সেইন্ট লুসিয়া।
পরে ডি/এল মেথডে নাইট রাইডার্সের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৯ ওভারে ৭২ রান। তাড়া করতে নেমে মাত্র ৩৪ রানেই সাজঘরে ফিরে যান চার ব্যাটসম্যান। সেখানে মাত্র ১৩ বলে ২৩ রান করে দলের জয় নিশ্চিত করেছেন ড্যারেন ব্রাভো। এছাড়া ৮ বলে ১৭ রান করেন কলিন মুনরো।
ব্যাটিংয়ে নামার প্রয়োজন পড়েনি ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা ডোয়াইন ব্রাভো। চার ম্যাচে চার জয় নিয়ে স্বভাবতই টেবিলে সবার ওপরে রয়েছে নাইট রাইডার্স। দুই নম্বরে থাকা সেইন্ট লুসিয়ার এটি পঞ্চম ম্যাচে দ্বিতীয় পরাজয়। এছাড়া বাকি চার দলই হেরেছে তিনটি করে ম্যাচ।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে  সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × three =